Sale!

তামাক পাতার গুড়া (জৈব বালাইনাশক) ১০০ গ্রাম

৳ 47.00

  • তামাক মানুষের জন্য ক্ষতিকর, কৃষকের জন্য তেমন উপকারি।
  • বিভিন্ন ধরণের বালাই, যেমন- পেস্ট, ক্যাটারপিলার, জাব পোকা দমণের জন্য এটি একটি কার্যকর বালাইনাশক।
  • ১ কাপ অর্গানিক টোবাকো (তামাক পাতা) ১ গ্যালন পানিতে মিশাতে হবে।
  • সারা রাত মিশ্রণটি রেখে দিতে হবে।
  • ২৪ ঘন্টার পর এটি হালকা বাদামী রং ধারণ করবে।
  • বেশী কালো হলে, বেশী পানি যোগ করতে হবে।
  • সোলানেসী পরিবারের গাছ ছাড়া এটি সব গাছে স্প্রে করা যাবে।
জাব পোকা সবজি ফসলের একটি মহা শত্রু পোকা । শিম, বরবটি, মটরশুটি, মরিচ, টমেটো, ঢেঁড়শ, বেগুন, কুমড়া, কপিসহ প্রায় সব সবজিতেই এ পোকা আক্রমণ করে থাকে । এমনকি লেবু ও পেয়ারা গাছেরও জাব পোকা ক্ষতি করে । জাব পোকারা দলবদ্ধভাবে সাধারণতঃ পাতার নিচের পিঠে থাকে । পোকাগুলো দেখতে খুব ছোট ছোট, রঙ সবুজ থেকে কালচে সবুজ । জাব পোকা যেখানে থাকে সেখানে পিঁপড়াও ঘুরে বেড়ায় । তবে শুধু পাতা নয়, এরা কচি ফল ও ফুলেও আক্রমণ করে। সেখান থেকে রস চুষে খায় । ফলে পাতা, ফুল, ফল বিকৃত হয়ে যায়, বৃদ্ধি থেমে যায় । পূর্ণাঙ্গ ও বাচ্চা দু অবস্থাতেই এরা ক্ষতি করে । এ ছাড়া জাব পোকা সবজির ভাইরাস রোগের বাহক হিসেবে কাজ করে । বিনা বিষে এ পোকাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হলে নিম্নলিখিত ব্যবস্থাদি নেয়া যেতে পারে–
– শুকনো তামাকপাতা সারারাত পানিতে ভিজিয়ে সেই পানি ছেঁকে তার সাথে দশগুণ পানি মিশিয়ে আক্রান্ত গাছে স্প্রে করা যায় ।
জ্যাসিড পোকা:
জ্যাসিড পোকা দেখতে খুব ছোট এবং হালকা সবুজ রঙের। পূর্ণাঙ্গ পোকা প্রায় ২.৫ মিলি মিটার লম্বা। পোকা সাধারণত পাতার নিচে লুকিয়ে থাকে গাছ ধরে ঝাঁকালে জ্যাসিড চারদিকে লাফিয়ে উড়ে যায়।
– তামাক পাতা ১কেজি পরিমাণ নিয়ে ১৫ লিটার পানিতে এক রাত ভিজিয়ে রাখতে হবে । এর সাথে সামান্য সাবান যোগ দিতে হবে । ছেঁকে সেই দ্রবণ স্প্রে করতে হবে ।

Reviews

There are no reviews yet.

Only logged in customers who have purchased this product may leave a review.